বান্দরবান সীমান্তে উদ্ধারকৃত মাইন ধ্বংস করেছে বোমা ডিসপোজাল টিম

fec-image

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তে গরু চড়াতে গিয়ে কৃষক কর্তৃক উদ্ধার করা দুটি স্থল মাইন ধ্বংস করেছে সেনাবাহিনীর বিস্ফোরক বিশেষজ্ঞ দল। সোমবার (১৯অক্টোবর) বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়িতে এসব মাইন ধ্বংস করা হয়।

এর আগে গেল ২৯ জুলাই বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্তের ৪৫-৪৬নম্বর পিলারের মাঝামাঝি বাংলাদেশের অভ্যান্তরের জামছড়ি এলাকার বাসিন্দা আবুল কালাম এই দুটি মাইন (ইমপ্রোভাইজড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস) উদ্ধার করেছিল। পরে বিজিবিকে খবর দিলে উদ্ধার হওয়া মাইন দুটি নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয়।

সোমবার সকালে নাইক্ষ্যংছড়ি ১১ বিজিবির সহায়তায় ২৪ পদাতিক ডিভিশনের প্রকৌশল বিভাগের সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার মো. আশরাফ আলীসহ ৮সদস্যের বিশেষজ্ঞ দল মাইনগুলোর বিস্টেম্ফারণ ঘটান।

নাইক্ষ্যংছড়ি ১১ বিজিবি অধিনায় লে. কর্নেল শাহ আবদুল আজিজ আহমেদ জানান, কিছুদিন পূর্বে সীমান্তের এক বাসিন্দা মাইনগুলো দেখেছিলেন। পরে সেনাবাহিনীর বোমা ডিসপোজাল টিম তা ধ্বংস করেছে।

এদিকে সীমান্ত এলাকার লোকজন জানান, ২০১৭ সালে রোহিঙ্গা শরণার্থীরা বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়ার পর থেকে নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধুম থেকে দোছড়ি সীমান্ত এলাকার বিভিন্ন স্থানে বেআইনীভাবে মাইন পুতে রাখে মিয়ানমার সীমান্ত রক্ষী বাহিনী। এসব মাইন দ্বারা অনেক স্থানীয় বাসিন্দা ও রোহিঙ্গা নাগরিক হতাহত হয়েছে। এছাড়া মিয়ানমারের বিদ্রোহী একটি গ্রুপের বিরুদ্ধে অভিযানের অংশ হিসেবে সীমান্তে মাইন স্থাপন করে আসছে মিয়ানমারের সীমান্ত রক্ষী বাহিনী।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: বান্দরবান, বোমা সিসপোজাল টিম, সীমান্তে মাইন
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

13 − one =

আরও পড়ুন