সেনা-পুলিশের কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থায়

খাগড়াছড়িতে উদযাপিত হচ্ছে বৈশাখী পূর্ণিমা

সেনা-পুলিশের কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থায় খাগড়াছড়িতে যথাযোগ্য ধর্মীয় মর্যাদায় উদযাপিত হচ্ছে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের বৈশাখী পূর্ণিমা।

শনিবার (১৮ মে) ভোর থেকে বিভিন্ন বৌদ্ধ বিহারে চলছে বুদ্ধ পূজা, পঞ্চশীল গ্রহণ, বুদ্ধমূর্তি দান, অষ্টপরিখারা দান, সংঘ দান, বিভিন্ন দানীয় বস্তু প্রদান, ভিক্ষুক সংঘের পিন্ডদান ও ধর্মীয় দেশনা।

বৈশাখী পূর্ণিমাকে ঘিরে প্রশাসন কঠোর নিরাপত্তা গ্রহণ করে। বিহারগুলোতে তিন দিন আগে থেকেই সেনা-পুলিশের কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছিলো। বিহারগুলোর সামনে বসানো হয় চেক পোস্ট।

বৈশাখী পূর্ণিমার এই তিথিতে ভগবান গৌতম বুদ্ধ জন্মগ্রহণ, বৌদ্ধত্ব লাভ ও নির্বাণ লাভ করেন। তাই ত্রিস্মৃতি বিজড়িত বৈশাখী পূর্ণিমা বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের কাঝে খুবই তাৎপর্যপূর্ণ। বিভিন্ন রকমের ফুল, ফল ও মিষ্টান্ন দিয়ে তাই প্রার্থনা করে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা।

খাগড়াছড়ি সদরের য়ংড় বৌদ্ধ বিহারে ধর্মীয় সভায় খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরীসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

বিকেলে বিহার প্রাঙ্গণ থেকে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা রয়েছে। বিশ্ব শান্তি ও মঙ্গলের প্রার্থনা শেষে সন্ধ্যার আকাশে হাজার প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মধ্য দিয়ে বৈশাখী পূর্ণিমার আনুষ্ঠানিকতা শেষ করবে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা।

ঘটনাপ্রবাহ: খাগড়াছড়ি, বৈশাখী পূর্ণিমা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two + sixteen =

আরও পড়ুন