আইনশৃঙ্খলা শান্তিপূর্ণ রাখার আদেশ আদালতের

ঈদগাঁওতে অসহায় ব্যক্তির জায়গা জবর দখল চেষ্টার অভিযোগ

fec-image

কক্সবাজারের ঈদগাঁও উপজেলার ঈদগাঁও কলেজ গেইটস্থ অসহায় ব্যক্তির জায়গা জবর দখল চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। ইতোমধ্যে নিরীহ ব্যক্তিটি আদালতের আশ্রয় নিয়েছে বলে জানা গিয়েছে। তার নাম মোহাম্মদ জাফর, পিতামোহাম্মদ কালু, সাং-উত্তর মাইজ পাড়া, ঈদগাঁও (বর্তমান কলেজ গেইট, ঈদগাঁও)।

আদালতে উপস্থাপিত আবেদনের তথ্যমতে, বাদি মোহাম্মদ জাফরের অর্ধশত বৎসরের ভোগদখলীয় বসতভিটাটি অবৈধ জবর দখল নিতে স্থানীয় একটি চিহ্নিত প্রভাবশালী চক্র মরিয়া হয়ে উঠেছে। বিগত কয়েকদিন ধরে সশস্ত্র ভাড়াটিয়া বাহিনী দিয়ে দফায় দফায় জবর দখলের অপচেষ্টা চালিয়েও ব্যার্থ হয়।

অবশেষে নিরুপায় জাফর বাপ-দাদার আমলের ভোগদখলীয় জায়গা হারানোর ভয় ও প্রাণে বাঁচার তাগিদে গত ১৮ মে অসহায় জাফর বাদী হয়ে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালত কক্সবাজার বরাবরে নালিশি জমিতে ১৪৪ ধারা চেয়ে একখানা আবেদন দাখিল করেন। আবেদনের প্রেক্ষিতে কক্সবাজার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালত তফসিলভুক্ত নালিশি জমিতে উভয় পক্ষকে শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখার আদেশ দেন এবং এতদ্ববিষয়ে ঈদগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল হালিমকে বিরোধীয় জায়গায় শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে নির্দেশও প্রদান করেন ।

নালিশি জমির তফসিল হচ্ছে ঈদগাঁও মৌজার বিএস ১৭৫৫,১৭৫৬.১৯৫৭.ও ১৯০১নং খতিয়ানের মোহাম্মদ জাফর , আব্দুস শুক্কুর, সুলতান আহমদ, মো. কালু, সুরতজান, এস্তাজ মিয়া এর রায়তী স্বত্ব ভোগ দখলীয় জায়গা। আদালতে দায়েরকৃত আবেদনে বাদি আরো উল্লেখ করেন, সম্প্রতি তফসিলোক্ত জায়গায় বিবাদি ঈদগাঁও উত্তর মাইজ পাড়ার মৃত ছাবের আহমদের পুত্র রমজানুল আলম গং এর লোলুপ দৃষ্টি পড়ে। এরই জেরে রমজানুল আলম গং গত ১৫ ও ১৭ মে দু’দফা ভাড়াটিয়া সশস্ত্র সন্ত্রাসী দিয়ে নিরীহ জায়গা মালিককে হুমকিসহ নানাভাবে হয়রানি করে আসছে।

এছাড়া জাফর গং নালিশি জমিতে শান্তিপূর্ণভাবে ভোগ দখলে থাকতে চাইলে রামজানুল আলম গংকে পাঁচ লক্ষ টাকা চাঁদা দেয়ার প্রস্তাবও করেন। নিরুপায় জাফর চাঁদা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে হুমকি ধমকির মাত্রা আরো বাড়িয়ে দেয় চক্রটি। উদ্ভূত পরিস্থিতি থেকে শান্তিপূর্ণ সমাধানে অসহায় বাদি পক্ষ আদালত শরণাপন্নসহ সংশ্লিষ্ট প্রশাসন ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেছেন।

 

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: অভিযোগ, ঈদগাঁও, জবর দখল
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

fourteen − 11 =

আরও পড়ুন