দেশের সবচেয়ে বেশি খারাপ সড়ক খাগড়াছড়িতে

fec-image

দেশের সবচেয়ে বেশি খারাপ সড়ক আছে পার্বত্য চট্টগ্রামের খাগড়াছড়ি সড়ক বিভাগে। ৩৮৮ কিলোমিটার সড়ক নেটওয়ার্কের মধ্যে ১৩৮ কিলোমিটার সড়কই ভাঙাচোরা। শতাংশের হিসাবে ধরলে খাগড়াছড়ির ৩৫ দশমিক ৭৭ শতাংশ সড়ক খারাপ। একইভাবে মৌলভীবাজারের ৩৪ দশমিক ১৭ শতাংশ, বান্দরবানের ৩১ দশমিক ৪৭ শতাংশ, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ৩০ দশমিক ২৪ শতাংশ, নরসিংদীর ২৯ দশমিক শূন্য ৫ শতাংশ সড়কের অবস্থা বেহাল বেহাল দশার মধ্যে রয়েছে ঢাকা সড়ক বিভাগের সড়কও বাণিজ্য নগরী নারায়ণগঞ্জের সড়কের অবস্থাও বেশ খারাপ। এ দুই সড়ক বিভাগে খারাপ সড়কের পরিমাণ যথাক্রমে ২৭ দশমিক ৭৬ ও ২৭ দশমিক ৬ শতাংশ। অন্যদিকে ২০ শতাংশের বেশি খারাপ সড়ক রয়েছে লক্ষ্মীপুর, কুমিল্লা, সুনামগঞ্জ, মুন্সীগঞ্জ, পাবনা, নড়াইল, রাঙ্গামাটি, হবিগঞ্জ, নোয়াখালী, চাঁদপুর, নাটোর, কুষ্টিয়া ও পিরোজপুর সড়ক বিভাগে।

সড়ক ও জনপথ (সওজ) অধিদপ্তরের জরিপে উঠে এসেছে এমন তথ্য। সংস্থাটির প্রকৌশলীরা বলছেন, বিগত চার-পাঁচ বছরে গৃহীত উন্নয়ন প্রকল্পগুলোর সুষ্ঠু বাস্তবায়ন এ সাফল্য এনে দিয়েছে ফরিদপুর সড়ক বিভাগকে।

দেশের সবচেয়ে ভালো সড়ক নেটওয়ার্ক গড়ে তুলেছে ফরিদপুর সড়ক বিভাগ। ফরিদপুরের ৯৬ দশমিক শূন্য ৬ শতাংশ সড়কই রয়েছে ভালো ও চলনসই অবস্থায়। জেলার ৩৪২ কিলোমিটার দীর্ঘ সড়ক নেটওয়ার্কের মধ্যে ভাঙাচোরা দশায় রয়েছে মাত্র ১৩ কিলোমিটার।

সওজের তথ্য বলছে ফরিদপুরে জাতীয় মহাসড়ক আছে ১১০ কিলোমিটার। জেলা মহাসড়ক ২৩২ কিলোমিটার। কোনো আঞ্চলিক সড়ক নেই। কয়েক বছর আগেও এসব সড়কের বেশির ভাগই ছিল ভাঙাচোরা দশায়। অবস্থা পাল্টাতে শুরু করে জেলা সড়ক উন্নয়ন প্রকল্প, বরিশাল জোন, ফরিদপুর অংশের কাজ শুরুর পর। এ প্রকল্পের মাধ্যমে জেলার বেশির ভাগ সড়ক উন্নয়ন করা হয়েছে। এর বাইরে আলাদা প্রকল্পের মাধ্যমে ফরিদপুর (বদরপুর)-সালথা-সোনাপুর-মুকসুদপুর সড়ক, সস্রাইল-আলফাডাংগা সংযোগ সড়কসহ ফরিদপুর (মাইজকান্দি)-বোয়ালমারী-গোপালগঞ্জ (ভাটিয়াপাড়া) সড়কের উন্নয়ন করা হচ্ছে।

সাম্প্রতিক সময়ে উন্নয়ন প্রকল্পগুলোর কাজ সুষ্ঠুভাবে শেষ হওয়ায় জেলার সব সড়ক ভালো অবস্থায় চলে এসেছে বলে জানিয়েছেন ফরিদপুর সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী ইমরান ফারহান। তিনি বণিক বার্তাকে বলেন, এখন আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে এ ভালো সড়ক নেটওয়ার্কের মান ধরে রাখা। এজন্য সড়ক উন্নয়নের পাশাপাশি সেগুলোর ‘রুটিন’ ও ‘পিরিয়ডিক’ রক্ষণাবেক্ষণকে আমরা গুরুত্ব দিচ্ছি। এখনো জেলার যেসব স্থানে সড়ক খারাপ অবস্থায় রয়েছে, সেগুলোও মেরামতের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

সওজের মহাসড়ক উন্নয়ন ও রক্ষণাবেক্ষণ (এইচডিএম) সার্কেলের সর্বশেষ জরিপ বলছে, ফরিদপুরের পর সবচেয়ে ভালো সড়ক রয়েছে মাগুরা সড়ক বিভাগ। ২৩১ কিলোমিটারের মধ্যে জেলায় ভালো সড়কের পরিমাণ ২১৮ কিলোমিটার বা ৯৪ দশমিক ৪১ শতাংশ। একইভাবে চুয়াডাঙ্গার ৯৪ দশমিক ২৯ শতাংশ, মাদারীপুরে ৯৩ দশমিক ১১ শতাংশ, কক্সবাজার সড়ক বিভাগে ভালো সড়কের পরিমাণ ৯২ দশমিক ৬ শতাংশ। ৯০ শতাংশের ওপরে ভালো সড়ক রয়েছে শেরপুর, জামালপুর, ভোলা, বরিশাল, রাজবাড়ী, গাইবান্ধা, ঠাকুরগাঁও ও কিশোরগঞ্জ সড়ক বিভাগে।

বিপরীতে সওজের সবচেয়ে বেশি খারাপ সড়ক আছে পার্বত্য চট্টগ্রামের খাগড়াছড়ি সড়ক বিভাগে। ৩৮৮ কিলোমিটার সড়ক নেটওয়ার্কের মধ্যে ১৩৮ কিলোমিটার সড়কই ভাঙাচোরা। শতাংশের হিসাবে ধরলে খাগড়াছড়ির ৩৫ দশমিক ৭৭ শতাংশ সড়ক খারাপ। একইভাবে মৌলভীবাজারের ৩৪ দশমিক ১৭ শতাংশ, বান্দরবানের ৩১ দশমিক ৪৭ শতাংশ, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ৩০ দশমিক ২৪ শতাংশ, নরসিংদীর ২৯ দশমিক শূন্য ৫ শতাংশ সড়কের অবস্থা বেহাল।

বেহাল দশার মধ্যে রয়েছে ঢাকা সড়ক বিভাগের সড়কও। বাণিজ্য নগরী নারায়ণগঞ্জের সড়কের অবস্থাও বেশ খারাপ। এ দুই সড়ক বিভাগে খারাপ সড়কের পরিমাণ যথাক্রমে ২৭ দশমিক ৭৬ ও ২৭ দশমিক ৬ শতাংশ। অন্যদিকে ২০ শতাংশের বেশি খারাপ সড়ক রয়েছে লক্ষ্মীপুর, কুমিল্লা, সুনামগঞ্জ, মুন্সীগঞ্জ, পাবনা, নড়াইল, রাঙ্গামাটি, হবিগঞ্জ, নোয়াখালী, চাঁদপুর, নাটোর, কুষ্টিয়া ও পিরোজপুর সড়ক বিভাগে।

সূত্রঃ- দৈনিক বনিক বার্তা

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: খাগড়াছড়ি, সড়ক
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eighteen + eighteen =

আরও পড়ুন