নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধুম সীমান্তে বন্দুকযুদ্ধে ১ রোহিঙ্গা নিহত: অস্ত্র ও ইয়াবা উদ্ধার

fec-image

নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম সীমান্তে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে রোহিঙ্গা ওয়াক্কাট্ট শাহ আলম নিহত হয়েছে। এসময় ঘটনাস্থল থেকে ১টি দেশীয় তৈরী এলজি, ৩ রাউন্ড কার্তুজ এবং ৪০হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে।

বৃহস্পতিবার (৩০ জুলাই) রাত ৩টার দিকে ঘুমধুম সীমান্ত এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে।

নাইক্ষ্যংছড়ির থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ আলমগীর হোসেন বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে সরকারের জিরো টলারেন্স সফল করতে পুলিশ কঠোর পরিশ্রম করে যাচ্ছে।

তারই ধারাবাহিকতায় ইয়াবা পাচারের খবর পেয়ে ঘুমধুম সীমান্তে পুলিশ অবস্থান নিলে মাদক কারবারিরা পুলিশ লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে এসময় আত্মরক্ষার্থে পুলিশ পাল্টা গুলি বর্ষণ করে।

উভয়পক্ষের গোলাগুলিতে শাহ আলম নামের এক রোহিঙ্গা গুলিবিদ্ধ হয়। তাকে উদ্ধার করে পাশ্ববর্তী হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

সূত্রে জানা গেছে, শাহ আলম ২০১৭সালে ২৫ আগস্টের পরে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে এসে উখিয়া ৭নং ক্যাম্পে আশ্রয় নিয়ে ইয়াবা ব্যবসা করে আসছিল। তার সাথে সীমান্ত এলাকার বেশ কয়েকজন প্রভাবশালী ব্যক্তি জড়িত রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: উখিয়া, বন্দুকযুদ্ধ, রোহিঙ্গা
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two × 2 =

আরও পড়ুন