খাগড়াছড়ি জেলা আ’লীগের সম্মেলন:

সভাপতি পদে একক হলেও সম্পাদক পদে আধা ডজন

fec-image

খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনকে কেন্দ্র করে নেতাকর্মীদের মাঝে উৎসাহ-উদ্দীপনা বিরাজ করছে। প্রায় ৭ বছর পর আগামী ২৪ নভেম্বর এ সম্মেলন হওয়ার কথা রয়েছে। সম্মেলনকে সামনে রেখে সম্ভাব্য প্রার্থীদের পাশাপাশি তৃণমুল নেতাকর্মীদের মাঝে প্রাণচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে।সভাপতি পদে একক প্রার্থী হিসেবে সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরার নাম উচ্চারিত হলেও সাধারণ সম্পাদক পদে আধা ডজন প্রার্থীর নাম শোনা যাচ্ছে।

২০১২ সালের ১১ নভেম্বর অনুষ্ঠিত খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামী লীগের কাউন্সিল। প্রায় তিন বছর পর ২০১৫ সালের ৫ অক্টোবর কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরাকে সভাপতি ও জাহেদুল আলমকে সাধারণ সম্পাদক করে খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামী লীগের ৭১ সদস্য বিশিষ্ট কার্যনির্বাহী কমিটির অনুমোদন পায়। কিন্তু নানা ইস্যুতে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের মধ্যে বিরোধের সৃষ্টি হয়।

এ বিরোধ পৌঁছে যায় তৃণমূল পর্যন্ত। শুরু হয় আলাদা কর্মসূচী পালন, পাল্টা-পাল্টি হামলা-মামলা। দুইপক্ষের মধ্যে অন্তত তিন ডজন পাল্টা-পাল্টি মামলা হয়। এমন কি প্রাণহানির ঘটনাও পর্যন্ত ঘটে। এরই জের ধরে ২০১৫ সালে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহেদুল আলমকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

ভারপ্রাপ্ত সম্পদকের দায়িত্ব দেওয়া হয় নির্মলেন্দু চৌধুরীকে। তবে সম্মেলনকে সামনে রেখে আপাতত কোন বিরোধ চোখে পড়ছে না। বরং সম্মেলনকে সফল করতে সবাই মাঠে নেমেছে। সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটিসহ একাধিক কমিটি গঠিত হয়েছে। পাশাপাশি চলছে, পদ প্রত্যাশিতদের প্রচার-প্রচারণা। বিশেষ করে সাধারণ সম্পাদক পদ প্রত্যাশিদের ব্যানার-ফেস্টুন ও তোরনে। বিশেষ করে সাধারণ সম্পাদক পদে একাধিক প্রার্থী মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন।

আগামী ২৪ নভেম্বর অনুষ্ঠিতব্য খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামী লীগে সম্মেলনে সভাপতি পদে একক ভাবে বর্তমান জেলা সভাপতি ও ভারত প্রত্যাগত উপজাতীয় শরণার্থী বিষয়ক টাস্কফোর্স চেয়ারম্যান কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি’র নাম শোনা যাচ্ছে। অপর দিকে সাধারণ সম্পাদক পদে একাধিক পদ প্রত্যাশির নাম শোনা যাচ্ছে।

এদের মধ্যে রয়েছেন, বর্তমান জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মনির হোসেন খান, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক নির্মলেন্দু চৌধুরী, সাংগঠনিক আ: জব্বার, জেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক দিদারুল আলম দিদার, মাটিরাঙা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌরসভার মেয়র সামছুল হক ও দীঘিনালা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি উপজেলা চেয়ারম্যান মো. কাসেম ও জেলা পরিষদ সদস্য এম এ জব্বার।

তবে প্রচার-প্রচারণায় এগিয়ে আছেন জেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক দিদারুল আলম। জেলা শহর ছাড়াও প্রতিটি উপজেলায় তার সমর্থনে শোভা পাচ্ছে বিশালাকারের ব্যানার-ফেস্টুন ও তোরন। প্রচার-প্রচারণায় পিছিয়ে নেই অপর সাধারণ সম্পাদক পদ প্রত্যাশি মনির হোসন খানও।

খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদ প্রত্যাশি দিদারুল আলম বলেন, গণতান্ত্রিক উপায়ে কাউন্সিলারদের ভোটে নেতৃত্ব নির্বাচন হলে তৃণমুলের নেতাকর্মীদের প্রত্যাশা পুরুন হবে। অপর সাধারণ সম্পাদক পদ প্রত্যাশি মনির হোসেন খান বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মতো খাগড়াছড়ি জেলার আওয়ামী লীগের তৃণমুল পর্যায়ের নেতাকর্মীরা স্বচ্ছ ও দূর্নীতিবাজ নেতামুক্ত নেতৃত্ব চাইছেন। মূলত: তৃণমূল নেতারাই আমাকে সাধারণ সম্পাদক পদে চাইছেন।

এদিকে আগামী ২৪ নভেম্বর অনুষ্ঠিতব্য খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনকে সফল করতে ইতি মধ্যে সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটিসহ একাধিক উপ-কমিটি গঠন করা হয়েছে। খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও সাবেক জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান চাইথোয়াই অং মারমাকে আহ্বায়ক ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক নির্মলেন্দু চৌধুরীকে সদস্য সচিবসহ ২৭ সদস্য বিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে।

সম্মেলন প্রস্তুতি ২৭ সদস্যের কমিটিতে রয়েছে ৫টি উপ-কমিটিও। তার মধ্যে অর্থ উপ-কমিটিতে খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরীকে আহ্বায়ক, মংসুইপ্রু চৌধুরী অপুকে সদস্য সচিব করা হয়।

ক্যজরী মারমাকে আহ্বায়ক, নুরুল আজমকে সদস্য সচিব করে প্রচার উপ-কমিটি, মংসুইপ্রু চৌধুরী অপুকে আহ্বায়ক, দিদারুল আলম দিদারকে সদস্য সচিব করে আপ্যায়ন উপ-কমিটি, কল্যাণ মিত্র বড়ুয়াকে আহ্বায়ক ও মংক্যচিং চৌধুরী অভ্যর্থনা উপ-কমিটি, পার্থ ত্রিপুরা জুয়েলকে আহ্বায়ক ও বিশ্বজিত রায় দাশকে সদস্য করে স্বেচ্ছাসেবক উপ-কমিটি।

সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্য সচিব নির্মলেন্দু চৌধুরী জানান, ইতি মধ্যে খাগড়াছড়ি জেলা আ’লীগের সম্মেলনের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। উৎসব মুখোর পরিবেশে সম্মেলনকে সফলভাবে সম্পন্ন করতে জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে ব্যাপক প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে।

প্রায় ১০ হাজার নেতাকর্মী ও সমর্থকদের অংশ গ্রহণের মধ্য দিয়ে কেন্দ্রীয় নেতাদের উপস্থিতিতে খাগড়াছড়ির ঐতিহাসিক আউটার স্টেডিয়ামে এ সম্মেলন হবে বলেও জানান তিনি।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: খাগড়াছড়ি, ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

14 + 16 =

আরও পড়ুন