খাগড়াছড়ি থেকে অপহৃত স্কুল ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার, অপহরণকারী ইয়াছিন মোল্লা গ্রেফতার

fec-image

খাগড়াছড়ি থেকে অপহৃত ৮ম শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রীকে ১৩ দিন পর ঢাকা নবাবগঞ্জ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার (৩ অক্টোবর) সকাল ৯টায় নবাবগঞ্জ পুলিশের সহযোগিতায় তাকে উদ্ধার করা হয়। এ সময় ঐ ছাত্রীকে অপহরণের অভিযোগে ইয়াছিন মোল্লাকে আটক করা হয়। তবে স্থানীয় সূত্রগুলো জানায়, প্রেমঘটিত কারণে ঐ স্কুলছাত্রী ফল ব্যবসায়ী ইয়াছিন মোল্লার সাথে পালিয়ে যায়।

খাগড়াছড়ি সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ রশীদ জানান, ২০ সেপ্টেম্বর বিকাল ৩ টায় খাগড়াছড়ি সদর উপজেলার নুনছড়ির বাসিন্দা রাপ্রু মারমার ৮ম শ্রেণিতে পড়ুয়া মেয়ে নিখোঁজ হয়। এ ঘটনায় রাপ্রু মারমার স্ত্রী চেঙ্গুয়া মারমা ইয়াছিন মোল্লা নামে জনৈক ব্যক্তিকে তার মেয়েকে অপহরণ করেছে মর্মে
সদর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করেন। প্রযুুক্তির মাধ্যমের শনিবার সকাল ৯টার দিকে নবাবগঞ্জ থানা পুলিশের সহযোগিতায় কথিত অপহৃত স্কুল ছাত্রীকে উদ্বার ও অপহরণকারী ইয়াছিন মোল্লাকে আটক করে পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রগুলো জানায়, ইয়াছিন মোল্লা কিশোরগঞ্জের শিমুল তলার বাসিন্দা মাঈন উদ্দিন মোল্লার ছেলে। বিবাহিত ও দুই সন্তানের জনক ইয়াছিন মোল্লা দীর্ঘদিন খাগড়াছড়ি জেলা শহরের নয়নপুর এলাকায় বসবাস করতো। কথিত অপহৃত স্কুল ছাত্রীর পিতা রাপ্রু মারমার ছিল আম বাগান। আর ফল ব্যবসার সূত্র ধরে ঐ স্কুল ছাত্রীর পিতা রাপ্রু মারমার সাথে ইয়াছিন মোল্লার সম্পর্ক। সে কারণে রাপ্রু মারমার বাসায় আসা-যাওয়ার এক পর্যায়ে তার মেয়ের সাথে ইয়াছিন মোল্লার প্রেমের সর্ম্পক গড়ে উঠে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: খাগড়াছড়ি, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

15 + 9 =

আরও পড়ুন