চকরিয়ায় কীটনাশক পানে দুই সন্তানের জনকের আত্মহত্যা

fec-image

কক্সবাজারের চকরিয়ায় স্ত্রীর সাথে অভিমান করে মো. আব্বাস উদ্দিন (২৯) নামের দুই সন্তানের জনক কীটনাশক পানে আত্মহত্যা করেছে।

উপজেলার হারবাং ইউনিয়নের করমুহুরী পাড়া এলাকায় বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটলেও ওইদিন রাত ১০টার দিকে চকরিয়া পৌরশহরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। নিহত আব্বাস উদ্দীন একই এলাকার মো. শফি আলমের ছেলে। হারবাং ইউপি চেয়্যারম্যান মিরানুল ইসলাম মিরান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

নিহতের পারিবার সদস্যদের উদ্ধৃতি দিয়ে চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. হাবিবুর রহমান বলেন, বেশ কিছুদিন ধরে পারিবারিক কলহ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে মনোমালিন্য চলে আসছিল। এরই জের ধরে বৃহস্পতিবার রাতে কীটনাশক পান করে অসুস্থ হয়ে পড়েন আব্বাস। পরে তার বাড়ির সদস্যরা উদ্ধার করে চকরিয়া পৌরশহরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করেন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঘটনার দিন রাত ১০টার দিকে সে মারা যায়।

তিনি আরও বলেন, নিহতের পরিবারের সদস্যদের আবেদনের প্রেক্ষিতে বিনা ময়নাতদন্ত ছাড়া নিহতের লাশ তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: আত্মহত্যা, কীটনাশক, চকরিয়ায়
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

sixteen − six =

আরও পড়ুন