মহেশখালীতে বকেয়া বেতনের দাবিতে এসপিএম প্রকল্প শ্রমিকদের সড়ক অবরোধ

fec-image

কক্সবাজার মহেশখালী উপজেলার কালারমারছড়ার এসপিএম প্রকল্পের বকেয়া বেতন আদায়ের জন্য সড়ক অবরোধ করে চাইনিজদের গাড়ি আটকে দিয়েছে শতাধিক শ্রমিক।

বৃহস্পতিবার (১৮ আগস্ট) দুপুর ১২টায় এসপিএম প্রকল্পের প্রধান গেইটের সামনে এই আন্দোলন করেন প্রকল্পে কর্মরত শ্রমিকরা।

এ খবর পেয়ে মহেশখালী থানা পুলিশের একটি টিম ও এসপিএম প্রকল্পের চাইনিজ কর্মকর্তারা এসে আন্দোলনরত শ্রমিকদের সাথে কথা বলেও সুরহা করতে পারেনি। ফলে আন্দোলনরত শ্রমিকেরা তাদের দাবি আদায়ের জন্য আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে।

এদিকে আন্দোলনরত শ্রমিকদের দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত এ আন্দোলন চালিয়ে যাবেন বলে ঘোষণা দেন আন্দোলনরত শ্রমিকেরা। তারা জানান, বিগত ৫ মাস ধরে প্রায় শতাধিক শ্রমিকের বেতন ভাতা আটকে রেখে কাজ থেকে ছাটাই করেছেন। কিন্তু বকেয়া বেতন গুলো দিচ্ছে না। একাধিকবার বেতন বিল জমা দেওয়ার চেষ্টা করলেও তা গ্রহণ করেনি চায়নিজসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। এ নিয়ে স্থানীয় চেয়ারম্যান ও মহেশখালী থানায় বকেয়া বেতনের জন্য অভিযোগ দিলেও কোন সুরাহা না হওয়ায় শেষ পর্যন্ত বাধ্য হয়েছি এ আন্দোলন করতে।

সিটিএল কোম্পানির শ্রমিক শাহাদাত কবির বলেন, আমরা প্রচণ্ড গরমে পরিবার পরিজনকে দুবেলা ডাল ভাত খাওয়ানোর জন্য কষ্ট করলেও বিগত চার পাঁচ মাস ধরে বেতন না পাওয়ায় অনাহারে দিন কাটাতে হচ্ছে। এ অবস্থায় আমরা আমাদের বকেয়া বেতনগুলো দেওয়ার জন্য এসপিএম প্রকল্পের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেও কোন লাভ হয়নি।’

তিনি আরও বলেন, ‘বিগত পাঁচ মাস ধরে প্রায় ৮০-৯০ জন শ্রমিক নিয়ে রং, প্লাস্টার ও ফুটিং বাবদ কন্ট্রাক্টে কাজ নিয়ে প্রায় পাঁচ লাখ টাকার বিল বকেয়া রেখেছে। এ অবস্থায় আমরা কোথায় যাব?’

ফোরম্যান মোহাম্মদ ইয়াসিন জানান, তেলের ট্যাংকে ১৮ জন শ্রমিক নিয়ে ২২ দিন কাজ করেও বেতন না দিয়ে আমাদের চুক্তি বাতিল করে ছাঁটাই করে দিয়েছে। শ্রমিকের মজুরি বাবদ প্রায় ৪ লাখ টাকার বিল না দিয়ে নানানভাবে হয়রানি করে আসছে। ফলে আন্দোলন করতে বাধ্য হয়েছি।

উল্লেখ্য, এদিকে টানা চার ঘন্টা ধরে গেইট অবরোধ করলে এসপিএম প্রকল্পের চাইনিজ কর্মকর্তা ও থানা পুলিশের একটি টিম এসেও তাদের সাথে কথা বলে সমস্যার সুরাহা হয়নি। ফলে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে শ্রমিকেরা। তারা সংশ্লিষ্ট প্রশাসনসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধির দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

বিকেল ৪ টায় মহেশখালী থানার ওসি প্রণব চৌধুরী এসপিএম প্রকল্পে এসে আন্দোলনরত শ্রমিকদের সাথে আলোচনা করে তাদের দাবি পূরণের আশ্বাস দিলে আন্দোলন প্রত্যাহার করেন শ্রমিকেরা।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন মহেশখালী থানার ওসি প্রণব চৌধুরী বলেন, ‌‌‘স্থানীয় চেয়ারম্যান ও প্রকল্পের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনা করে তাদের ন্যায্য পাওনা পরিশোধের আশ্বাসে তারা আন্দোলন প্রত্যহার করে নেন।’

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: সড়ক অবরোধ
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 × 2 =

আরও পড়ুন