রামুতে ২ শিশুর খুনিদের ফাঁসির দাবিতে বাইশারীতে মানববন্ধন

77777

বাইশারী (নাইক্ষ্যংছড়ি) প্রতিনিধি:

রামু উপজেলার গর্জনীয়া বড়বিল এলাকায় সন্ত্রাসী কর্তৃক ছাত্র হত্যার প্রতিবাদে বুধবার বাইশারীর বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী, সামাজিক সংগঠন, ব্যানার-ফেস্টুন নিয়ে সকাল ১২টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে। মানববন্ধন শেষে এক বিশাল র‌্যালি বের হয়ে বাইশারীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে বাইশারী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে শিক্ষার্থীরা খুনিদের ফাঁসির দাবি জানান।

সমাবেশে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু শাফায়াত মোহাম্মদ শাহেদুল ইসলাম বিষয়টি সরকারের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট জানানোর আশ্বস্থ করেন। এ সময় বাইশারী ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুল হক, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি মো. আলম, বাইশারী বাজার সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম বাহাদুর, সেক্রেটারী শহিদুল হক, বাইশারী উচ্চ বিদ্যালয় সভাপতি মো. শাহাব উদ্দিন, শাহ্ নুরুদ্দীন দাখিল মাদরাসা সভাপতি আব্দুর রশিদ, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকগণসহ গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত ১৭ জানুয়ারি রবিবার রামু উপজেলার গর্জনীয়া বড়বিল এলাকায় দুই সহোদর বাড়ীর পার্শ্বে অন্যান্য শিশুদের সাথে খেলা করছিল। ঐ সময় পার্শ্ববর্তী বাড়ীর আব্দুর শুক্কুর ডাকাতের ছেলে জাহাঙ্গীর ডাকাত তাদের জঙ্গলে পাখির বাচ্চা ধরার কথা বলে অপহরণ করে নিয়ে যায়। সন্ধ্যা ৭টায় মা ছেনোয়ারা সন্তানদের বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুজি করার এক পর্যায়ে মামা আব্দুল আলিম সওদাগরের মোবাইলে মেসেজের মাধ্যমে ৪ টাকা মুক্তিপন দাবি করে অপহরণ কারীরা। অন্যথায় তাদের হত্যা করার হুমকি দেয়া হয়।

ঘটনাটি পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জকে জানালে জনতা ও বাইশারী পুলিশের সাহায্যে অভিযানে নেমে ঐ দিন রাতে ৪ ডাকাতকে আটকের ৩ দিন পর ডাকাতের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী মঙ্গলবার রাত ১২টার দিকে দুই সহোদরকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। রাত ১টার দিকে পুলিশ সুরতহাল শেষে লাশ ময়না তদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

উক্ত ঘটনায় বিক্ষুদ্ধজনতা ডাকাতদের বাড়ীঘর ভাংচুর, অগ্নিসংযোগসহ ফাঁসির দাবিতে মিছিল সমাবেশ করেছে। বর্তমানে পুরো এলাকা থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 + ten =

আরও পড়ুন